অর্থনীতি

ফেনী নদীর ওপর সেতু বানাচ্ছে ভারত

ফেনী নদীর ওপর সেতু তৈরির কাজ শুরু করেছে ভারত। বাংলাদেশের চট্টগ্রামের সঙ্গে উত্তর-পূর্ব ভারতকে সংযুক্ত করতে এ সেতু নির্মাণ করা হচ্ছে।

ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য থেকে ভারী যন্ত্রপাতি ও মালামাল এ সেতু ব্যবহার করে চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে অন্য অঞ্চলে আনা-নেয়া করা হবে। খবর দ্য হিন্দুর।

দেশটির শীর্ষ কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে শনিবার পত্রিকাটির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, চট্টগ্রাম বন্দর থেকে ত্রিপুরা রাজ্যের দক্ষিণ সীমান্ত শহর সাবরুমের দূরত্ব মাত্র ৭২ কিলোমিটার। গত বছরের ৬ ও ৭ জুন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের সময় তিনি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সঙ্গে নিয়ে ওই ফেনী সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

ত্রিপুরার পাবলিক ওয়ার্ক ডিপার্টমেন্টের (পিডব্লিউডি) মহাসড়ক অংশের প্রধান প্রকৌশলী দীপক রঞ্জন দাস সাংবাদিকদের বলেন, উত্তর-পূর্ব অঞ্চলের জন্য চট্টগ্রাম বন্দর থেকে পণ্য ও ভারী যন্ত্রপাতি বহনের বিস্তারিত প্রতিবেদনসহ (ডিপিআর) সেতু তৈরির প্রাথমিককাজ শেষ করেছে ভারত।

প্রয়োজনীয় অর্থের জন্য এই ডিপিআরে কিছু পরিবর্তন এনে আগামী সপ্তাহেই তা ভারতের সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক মন্ত্রণালয়ে জমা দেয়া হবে।

ভারতের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, দুই লেনের সেতু এবং বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে প্রয়োজনীয় সংযোগ সড়ক নিজেদের খরচে তৈরি করতে চায় নয়াদিল্লি। সেতু ও সংযোগ সড়ক তৈরির দায়িত্ব দেয়া হবে ত্রিপুরার পিডব্লিউডিকে।

দীপক রঞ্জন দাস বলেন, দরপত্র চূড়ান্ত হওয়ার পর ১৫০ ফুট দীর্ঘ সেতু এবং এজন্য প্রয়োজনীয় অবকাঠামো তৈরি করতে আড়াই বছর সময় লাগতে পারে।

ত্রিপুরা পিডব্লিউডির মন্ত্রী বাদল চৌধুরী বলেন, প্রাথমিক নির্মাণ ও অবকাঠামোর কাজ চূড়ান্ত করতে বাংলাদেশ ও ভারতের একদল সিনিয়র কর্মকর্তা সম্প্রতি সাবরুম ও রামগড় (বাংলাদেশের) পরিদর্শন করেছেন।

তিনি আরও বলেন, সেতুটি তৈরি করতে ৯৪ কোটি রুপি খরচ হবে। আর সেতুটি শুধু ভারতই নয়, দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর বাণিজ্যও সহজ করবে।

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *