অপরাধ নির্বাচিত ফেনী

ঈদের দিন সকালে নির্যাতন না করার আশ্বাস, রাতে খুন – স্ত্রী হত্যার ঘটনায় স্বামী গ্রেপ্তার

kayes

যৌতুকের জন্য আর নির্যাতন করা হবে না, ঈদের দিন সকালে স্ত্রীকে কথা দিয়েছিলেন স্বামী। বিশ্বাস করে বাবার বাড়ি থেকে স্বামীর ঘরে ফিরে যান স্ত্রী ফারজানা আক্তার। কিন্তু রাতেই খুন হন তিনি। অভিযোগ উঠেছে, স্বামী কায়েস বিন কাশেম শ্বাসরোধে স্ত্রীকে হত্যা করেছেন। এ ঘটনায় স্বামীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ফেনী শহরের রামপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। ফারজানা-কায়েস দম্পতির পাঁচ বছর বয়সী একটি ছেলে রয়েছে।

ফারজানার পরিবার ও পুলিশের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, প্রায় আট বছর আগে ফেনী পৌরসভার রামপুর গ্রামের কায়েস বিন কাশেমের সঙ্গে ছাগলনাইয়ার বল্লভপুর গ্রামের ফারজানা আক্তারের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে স্বামী যৌতুকের জন্য ফারজানাকে নির্যাতন করতেন স্বামী। কয়েক মাস আগে স্ত্রীর কাছে চার লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন কায়েস। টাকা না পেয়ে স্ত্রীকে মারধর করে বাবার বাড়ি পাঠিয়ে দেন তিনি।

পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার ঈদের দিন ফারজানাদের বাড়িতে যান কায়েস। এ সময় স্ত্রীকে আর নির্যাতন না করার কথা দেন। পরে স্বামীর সঙ্গে শ্বশুরবাড়িতে যান ফারজানা। রাতেই যৌতুক নিয়ে ঝগড়ার একপর্যায়ে গলায় গামছা পেঁচিয়ে ফারজানাকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার ও স্বামী কায়েসকে গ্রেপ্তার করে।

ফেনী সদর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. শাহিনুজ্জামান বলেন, ফারজানার মা শাহিন আক্তার কায়েসের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেছেন।

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *